সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবি: রোহিঙ্গা হতাহতে ১৯ দালালের বিরুদ্ধে মামলা

0
সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবি: রোহিঙ্গা হতাহতে ১৯ দালালের বিরুদ্ধে মামলা
সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবি: রোহিঙ্গা হতাহতে ১৯ দালালের বিরুদ্ধে মামলা

সাগরপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় পাচারের চেষ্টাকালে কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে। এতে এখন পর্যন্ত ১৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এবং ৭২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।এ ঘটনায় ১৯ দালালের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মামলা করা হয়েছে।এর মধ্যে আট জনকে আটক করা হয়েছে।

জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার রাতে টেকনাফ থানার সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ডের কন্টিজেন্ট কমান্ডার এম এস ইসলাম বাদী হয়ে মামলটি করেন।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আটককৃত আট দালাল হলেন- টেকনাফের নোয়াখালীপাড়ার হাসান আলীর ছেলে সৈয়দ আলম (২৮), উখিয়ার বালুখালী ১০ নম্বর ক্যাম্পের কবির হোসেনের ছেলে মো. ওসমান, রাজার পাড়ার মোস্তাক আহম্মদের ছেলে হুমায়ুন কবির (২০), উলা মিয়ার ছেলে ফয়েজ আহম্মদ (৫০), , মমতাজ মিয়ার ছেলে মো. রফিক(২৬), রশিদ আহম্মদের ছেলে মো. করিম (৪৯), আব্দুন ছালামের ছেলে মো. আব্দুল আজিজ (৩০) ও জুম্মা পাড়ার মো. আজমের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২০)।

টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, ভিকটিমদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী টেকনাফ থানায় মঙ্গলবার রাতে ১৯ দালালের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। দালালদের মধ্যে চারজন আগেই আটক ছিল। এছাড়া মঙ্গলবার রাতে বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে আরও চার দালালকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত দালালদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, সাগরপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্টমার্টিন এলাকায় মঙ্গলবার ভোরে পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একটি ট্রলার ডুবে যায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ মরদেহ এবং ৭২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।